Detail article on ‘Snakes of Medinipur’. মেদিনীপুরের সাপ সম্পর্কে বিস্তারিত প্রবন্ধ।

মেদিনীপুরের সাপ | Snakes of Medinipur

রাকেশ সিংহ দেব।

সাপ! সামান্য এই শব্দের উচ্চারণ আমাদের গায়ে কাঁটা দেয়। যে কোনও সাপ দেখলে মানুষ আজও নিজেকে বিপন্ন মনে করে। সাপের প্রতি মানুষের ভয় এতটাই যে রাতের পর সাপের নাম মুখে আনতে নেই, সাপ তখন হয়ে যায় ‘লতা’। কিন্তু আমরা কতজন আজও প্রকৃতির এই বিস্ময়কর প্রাণীদের প্রতি ভালবাসা পোষণ করে তাদের সম্পর্কে জানতে আগ্রহী? মানুষ এবং সাপ – যুগযুগান্ত ধরে চলে আসা বিভিন্ন অন্ধবিশ্বাস এবং কুসংস্কারের ফলে আজ এক যাদের মধ্যে এক শত্রুতাপূর্ণ সম্পর্ক। আমাদের সবসময় মনে রাখতে হবে সাপ ইচ্ছাকৃতভাবে কামড় দেয় না আর অনেক সময় এদের কামড় প্রাণঘাতী নয়। তাই শুধুমাত্র অজ্ঞতা বা কুসংস্কারের বশবর্তী হয়ে এদের মারা উচিত নয়।

পিংলার নয়া'র ময়না চিত্রকরের আঁকা 'মনসামঙ্গল' পটের অংশ।
পিংলার নয়া'র ময়না চিত্রকরের আঁকা 'মনসামঙ্গল' পটের অংশ।

আমাদের ভুললে চলবেনা এই বাংলার মাটিতেই রচনা হয়েছে ‘মনসামঙ্গল’, এখানেই সাপেদের দেবী রূপে পূজা করা হয়। আমাদের দেশের সংবিধানের WILDLIFE PROTECTION ACT 1972 অনুসারে সাপ সংরক্ষিত প্রাণী এবং এদের হত্যা করা, আহত করা, বন্দী করা, বেআইনি ভাবে বিষ সংগ্রহ করা শাস্তিযোগ্য অপরাধ। এই অপরাধের শাস্তিস্বরূপ জেল জরিমানা দুই হতে পারে। প্রকৃতি ও বন্যপ্রাণপ্রেমীর চোখে দেখলে সাপ খুবই সুন্দর এবং পরিবেশবান্ধব উপকারী প্রাণী। আসুন এদের না মেরে এদেরও বাঁচতে দিই।


সারা বিশ্ব জুড়ে সাপেদের রক্ষা করা এবং জনমানসে সাপেদের সম্পর্কে সচেতনতা গড়ে তোলার উদ্দেশ্যে প্রতিবছর ১৬ জুলাই তারিখটি “বিশ্ব সর্প দিবস” (International World Snake Day) হিসেবে পালন করা হয়। তবে শুধুমাত্র একদিন সর্পদিবস পালন করলেই হবে না প্রত্যেক দিনই হোক পরিবেশ ও বন্যপ্রাণ দিবস। সাপকে চিনতে আর জানতে দরকার প্রয়োজনীয় পড়াশুনা ও সঠিক তথ্য আহরণ, নাহলে সংরক্ষণের মাপকাঠিতে দুজনের কপালের বিপদ নাচছে। মানুষের মধ্যে সাপ বিষয়ে সচেতনতা না বাড়লে মানুষের হাতে রোজ রোজ সাপের মৃত্যু এড়ানো সম্ভব নয়, সম্ভব নয় মানুষের জীবন রক্ষা করা।

শিল্পী সবাপথি'র (Sabapathy) আঁকা মনসা দেবী।
শিল্পী সবাপথি'র (Sabapathy) আঁকা মনসা দেবী।

পৃথিবীর মধ্যে বিবর্তনের হাত ধরে সবচেয়ে মুগ্ধকর প্রাণীর যদি তালিকা তৈরি করে হয় তাহলে সবার উপরে থাকবে সাপেদের নাম। হাত নেই, পা নেই, চোখের পাতা নেই, কান নেই – এত কিছু না থাকা সত্বেও যারা সুন্দর! শিকার ধরতে পটু এবং স্বচ্ছন্দ চলাফেরার মাধ্যমে এরা আন্টার্কটিকা বাদে পৃথিবীর সর্বত্র নিজেদের বিস্তৃতি ঘটিয়েছে। সারা দেশের মতো আমাদের মেদিনীপুর জেলাতেও বিভিন্ন প্রজাতির সাপের দেখা পাওয়া যায়। এদের মধ্যে অধিকাংশই নির্বিষ এবং মাত্র কয়েকটি বিষধর। জেলার এই সাপেদের সঙ্গে জেলাবাসীদের পরিচয় করিয়ে সাপ সম্পর্কে জন সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য মেদিনীপুর শহরের সর্পপ্রেমী এবং পরিবেশকর্মী রাকেশ সিংহ দেব -এর কলমে শুরু হল ধারাবাহিক ‘মেদিনীপুরের সাপ’।

প্রথম পর্বে দেখুন "কালাচ"।

(পরের পাতায়) »


midnapore.in

(Published on 16.07.2020 (World Snake Day)